অবিচার [দ্বিতীয় পর্ব]

অবিচার [ দ্বিতীয় পর্ব ]

অবিচার [ দ্বিতীয় পর্ব ] | সালসাবিলা নকি প্রথম পর্ব পড়তে ক্লিক দিন: অবিচার [ প্রথম পর্ব ] বাসার সামনে বড় তালা ঝুলে আছে দেখে মেজাজ খারাপ হয়ে গেল বাদলের। মোমেনা আবার তাকে না বলে কোথাও গেছে। কিন্তু কোথায় যেতে পারে, কখন আসবে, এসব কিছু বলে যায়নি। সেসব থাক, যাওয়ার আগে তাকে একটু বলে যাবে না? বাদলের খুব অপমানবোধ হতে থাকে। মোমেনা আজকাল বেশিই অবাধ্য হয়ে গেছে। দিনদিন তার জীবনটা বিষিয়ে তুলছে। গলায় আটকানো মস্ত বড় কাঁটার মতো মনে হয় মোমেনাকে। না পারছে গিলে ফেলতে, না পারছে বের করে ফেলে…

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
পুরোটা পড়ুন

অবিচার [প্রথম পর্ব]

অবিচার [ প্রথম পর্ব ]

অবিচার [ প্রথম পর্ব ] | সালসাবিলা নকি ‘ও ভাইজান, আপনের বোন গেরামে অশান্তিতে আছে আর আপনি এইখানে শহরে ফ্যানের নিচে বইসা মহানন্দে টিভি দেখতেছেন? বইনের জন্যে কি একটুও পরান জ্বলে না?’ ভরদুপুরের কাঠফাটা রোদে এক তলা বাসাটা আগুনের চুল্লির মতো গরম হয়ে থাকে। তাই এই সময় মফিজুর রহমান বাসার সদর দরজা খোলা রাখেন। সামনে চিকন করিডোরের মতো। সেই করিডোরের শেষপ্রান্তে লোহার গেইট। মোটে তিনটে বাসা আছে এই বিল্ডিং এ। তিনটেই পাশাপাশি। দেখতে অনেকটা কলোনির মতো লাগে। ওপরে খোলা ছাদ থাকায় উন্নত মানের কলোনি বলা যায় এটাকে। ছাদের গরম সরাসরি…

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
পুরোটা পড়ুন

একটি ভুলের গল্প

একটি ভুলের গল্প | জান্নাতুন ফাতেমা রাত্রি 

একটি ভুলের গল্প | জান্নাতুন ফাতেমা রাত্রি এক. ঘটনার শুরু প্রায় এক মাস আগে। ইদের পর মেসে ফিরে এসেছি। আমার আগের রুমমেট মেস ছেড়ে দিয়েছিল। আমি নতুন রুমমেটের অপেক্ষায় ছিলাম। একদিন সন্ধ্যায় বিছানায় বসে বই পড়ছিলাম, হঠাৎ মনে হলো উপর থেকে আমার পাশেই কিছু একটা পড়ল। আমি ভেবেছিলাম টিকটিকি হবে হয়তো। কিন্তু দেখলাম ওটা অন্যকিছু। খুব ছোট, এক ইঞ্চির মতো লালচে একটা বস্তু। আমি ভালোভাবে দেখতে গিয়েই অবাক হলাম। ওটা ধীরে ধীরে বড় হচ্ছিল, এক ইঞ্চি থেকে দু ইঞ্চি, পাঁচ ইঞ্চি, সাত ইঞ্চি। ক্রমেই ওটা ফুলে ওঠছিল। খেয়াল করলাম ওটার…

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
পুরোটা পড়ুন

বিষাণ্ণিতা 

বিষাণ্ণিতা - আবুল হাসনাত বাঁধন

বিষাণ্ণিতা | আবুল হাসনাত বাঁধন এক. মাথার উপর ছাতিফাটা রোদ্দুর কিলবিল করছে। আমি বাউণ্ডুলের মতো হাঁটছিই তো হাঁটছিই, পথের শেষ নেই। মাঝেমাঝে মফস্বল শহরের দুয়েকটা সুপরিচিত গাড়ি সাঁই সাঁই করে পাশ কেটে যাচ্ছে আমার। ঠিক কী কারণে, কোন কাজে আমি এখানে এসেছিলাম মনে করতে পারছি না! মাথার ভেতর সেসব বাদ দিয়ে অন্য চিন্তা ঘুরপাক খাচ্ছে। অনেকদিন পর পূর্বার সাথে দেখা হলো। অনেকদিন বলতে প্রায় বছর তিনেক। মনে হলো আমার ছোট্ট পিচ্চিটা হঠাৎ করে বড় হয়ে গেছে। তার সেই কিশোরী মুখে এখন বয়সের গাম্ভীর্য, চোখের নিচে কালশিটে পড়েছে, গালে ইয়া বড়…

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
পুরোটা পড়ুন

একুশে বইমেলা ২০২০ এ আসছে মৌলী আখন্দের উপন্যাস ‘একা’!

একা (উপন্যাস) | মৌলী আখন্দ | রিভিউ: সালসাবিলা নকি | গল্পীয়ান | Golpiyan

১৯৭১ সাল অর্থাৎ আজ থেকে ৪৯ বছর আগে মেয়েদের জীবন কেমন ছিল? আমার নানির মুখে শোনা, তার বিয়েটা ছিল এমন, ‘উঠ ছুড়ি তোর বিয়ে হবে।’ তের, চৌদ্দ, পনেরো বছরের মেয়েদের আমরা এখন ‘বাচ্চা একটা মেয়ে’ বলি। অথচ সেই সময়ে এই বাচ্চা মেয়েরা একটা দুটো বাচ্চার মা হয়ে যেত। কী কঠিন সময় ছিল তাদের! সেই অল্প বয়সে বিয়ে, স্বামী, সংসার আর বাচ্চা সামলানো! কেমন ছিল তাদের অনাধুনিক জীবনযাপন? জানা যাবে আমাদের নানি-দাদির কাছ থেকে। আর জানা যাবে- একা উপন্যাসটি থেকে। ‘একা’ একটি সামাজিক জীবনধর্মী উপন্যাস। কিন্তু এতে থ্রিল, রোম্যান্স সবই সমানুপাতে…

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
পুরোটা পড়ুন