ঈশিকা জাহান মুন

গ্রীষ্মের এক স্নিগ্ধ ভোরে শতভাগ নিখুঁত সেই মেয়েকে দেখেছি

গ্রীষ্মের এক স্নিগ্ধ ভোরে শতভাগ নিখুঁত সেই মেয়েকে দেখেছি

গ্রীষ্মের এক স্নিগ্ধ ভোরে শতভাগ নিখুঁত সেই মেয়েকে দেখেছি মূল: হারুকি মুরাকামি অনুবাদ: ঈশিকা জাহান মুন এপ্রিলের এক সুন্দর সকাল। টোকিওর হারাজুকু নামের এক ছিমছাম এলাকার সংকীর্ণ রাস্তা ধরে হেঁটে যাচ্ছিলাম, শতভাগ নিখুঁত সেই মেয়েটির সামনে দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলাম আমি, আর তখনই মনে হলো— এই মেয়েটাকে আসলে আমার জন্যেই ধরায় পাঠানো হয়েছে। সত্যি বলতে, সে …

গ্রীষ্মের এক স্নিগ্ধ ভোরে শতভাগ নিখুঁত সেই মেয়েকে দেখেছি Read More »

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
গল্পের গল্প | আবুল হাসনাত বাঁধন

গল্পের গল্প

গল্পের গল্প | আবুল হাসনাত বাঁধন এটা কোনো আস্ত বইয়ের রিভিউ নয়, শুধুমাত্র একটা ছোটোগল্পের ছোট্ট পাঠ-প্রতিক্রিয়া বলা যায়। ঠিক সুচারু কিংবা দক্ষ হাতে লেখা কোনো পাঠ প্রতিক্রিয়াও বলা যাবে না, আনাড়ি হাতের কিছু অতীত অনুভূতির গল্প বলাই শ্রেয়। তবুও লিখছি। কারণ,  ‘আমরা তিনজন‘ গল্পটার সাথে আমার অনেক অদ্ভুত আবেগ অনুভূতি জড়িত! গল্পটা প্রথম পড়ি …

গল্পের গল্প Read More »

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
প্রচলিত বানান বিভ্রাট

প্রচলিত বানান বিভ্রাট

প্রিয় পাঠক, গল্পীয়ান বানান ক্লাসের প্রথম কিস্তিতে আজ আমরা জানব কিছু প্রচলিত বানান বিভ্রাট সম্পর্কে। দেখতে কিংবা শুনতে অনেকটা একই রকম হওয়ায় অনেক বানান নিয়ে আমরা দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভুগি। দুটো বানান গুলিয়ে ফেলে একটার জায়গায় অন্যটা লিখি। আশা করি, এই লেখাটি পড়ার পর আপনাদের আর ভুল হবে না। চলুন তাহলে শুরু করা যাক। ভাবি / ভাবী …

প্রচলিত বানান বিভ্রাট Read More »

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
আমরা তিনজন | বুদ্ধদেব বসু

আমরা তিনজন

আমরা তিনজন | বুদ্ধদেব বসু আমরা তিনজন একসঙ্গে তার প্রেমে পড়েছিলাম : আমি, অসিত আর হিতাংশু; ঢাকায় পুরানা পল্টনে, উনিশ-শো সাতাশে। সেই ঢাকা, সেই পুরানা পল্টন, সেই মেঘে-ঢাকা সকাল! এক পাড়ায় থাকতাম তিনজন। পুরানা পল্টনে প্রথম বাড়ি উঠেছিল তারা-কুটির, সেইটে হিতাংশুদের। বাপ তার পেনশন পাওয়া সাব-জজ, অনেক পয়সা জমিয়েছিলেন এবং মস্ত বাড়ি তুলেছিলেন একেবারে বড় …

আমরা তিনজন Read More »

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:
একটি ইঞ্জিন ও হলুদ জামা _ রাহুল চন্দ্র দাস

একটি ইঞ্জিন ও হলুদ জামা

একটি ইঞ্জিন ও হলুদ জামা | রাহুল চন্দ্র দাস এক. বাজারের গলি-ঘুপচির মধ্যে বিশাল বিশৃঙ্খল ওয়ার্কশপ। তার এক কোনায় একটা পুরোনো ইঞ্জিন জবুথবু পড়ে থাকে। লোহা-লক্কড়ের স্তুপের মতো মুমূর্ষু পড়ে পড়ে ঝিমোয়। অলস ও ক্লান্ত দুপুরের আড্ডার সময় এর ওপর কেউ কেউ বসে থাকে। খাবার সময় হয়ে গেলে টেবিল বা খাট আশেপাশে খুঁজে না পেয়ে …

একটি ইঞ্জিন ও হলুদ জামা Read More »

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন: